সচেতনতাই পারে একটি জীবন বাঁচাতে

সচেতনতাই পারে একটি জীবন বাঁচাতে
জরুরি প্রয়োজনে অ্যাম্বুলেন্স ব্যবহারের ক্ষেত্রে লক্ষণীয় বিষয় সমূহ


🔰 নিজের নিরাপত্তা

  • কোমরের উপরে নয়, হাঁটুর উপরে ভর করে রোগী উঠানো ও নামানোর কাজ করুন। প্রয়োজনে অন্য কারো সাহায্য নিন
  • চোখে ঘুম ও অসুস্থতা নিয়ে গাড়ি চালাবেন না
  • প্রি-শিফট অ্যাম্বুলেন্সের প্রতিটি যন্ত্রাংশ পরীক্ষা-নিরীক্ষা এবং প্রি-ড্রাইভিং চেক করা অত্যন্ত জরুরি
  • দুর্যোগপূর্ণ আবহওয়ায় ও দুর্যোগের সময় অ্যাম্বুলেন্স চালানোর সময় সচেতন থাকুন
  • পর্যাপ্ত বিশ্রাম, কাজের সময় সতর্কতা এবং গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন


🔰 জরুরি রোগীর সেবার পূর্বে ও পরে অবশ্য পালনীয়

  • একটি মাস্ক ও গ্লাভস একবারই ব্যবহার করুন
  • অক্সিজেন সিলিন্ডারের ক্ষেত্রে ফ্লো-মিটার ভালোভাবে চেক করুন এবং একজনের ব্যবহৃত মাস্ক অন্যজনকে ব্যবহার করতে দেওয়া থেকে বিরত থাকুন
  • দুর্ঘটনা পরবর্তী ১ ঘণ্টা রোগীর জীবন রক্ষায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ
  • রোগীকে বহন করার সময় তার প্রাথমিক চিকিৎসা, সিপিআর এবং অন্যান্য জীবন রক্ষাকারী প্রাথমিক ব্যবস্থা নেওয়ার দক্ষতা অর্জন করুন
  • হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক বা দুর্ঘটনার মতো জরুরি পরিস্থিতিতে গোল্ডেন আওয়ারের মধ্যে রোগীকে হাসপাতালে পৌঁছে দিন


🔰 অ্যাম্বুলেন্স চালানোর সময় করণীয়

  • আপনার গাড়ির গ্যাস সিলিন্ডার (খচত্র) সময়মতো টেস্ট করুন
  • সহিংস ও অপ্রীতিকর পরিস্থিতিতে পুলিশের সহায়তা নিন
  • অ্যাম্বুলেন্স ঠিক ও ঝুঁকিমুক্ত জায়গায় পার্কিং করুন
  • রোগীর অবস্থার ভিত্তিতে প্রয়োজন অনুযায়ী লাইট এবং সাইরেন ব্যবহার করুন
  • গতিসীমা এবং ট্রাফিক সিগনালসহ ট্রাফিক আইন এবং বিধানগুলি অনুসরণ করুন

সচেতনতাই পারে একটি জীবন বাঁচাতে